বর্ণনামূলক না ড্রাফটিং? একটি গুজবের অবসান।

গত তিন দিন ধরেই আইন ছাত্র/ছাত্রি সম্মিলিত ফেইসবুক গ্রুপ ‘শিক্ষানবিশ আইনজীবী’ তে চলছে তুমুল বিতর্ক। কেউ একজন লিখেছেন বার কাউন্সিল নাকি কোন নোটিশ ছাড়াই লিখিত পরিক্ষার সিলেবাস পরিবর্তন করেছে। তাই হঠাৎ করেই গ্রুপের সদস্যদের মধ্যে একটা আতংকের সৃষ্টি হয়।

সবারই একই প্রশ্ন, লিখিত পরিক্ষায় কি তাহলে এবার বর্ণনামূলক প্রশ্ন আসবে না? নিউজ ফিড এ একটার পর একটা একই বিষয়ে পোস্ট দেখে আমি নিজেও খানিকটা চিন্তিত হয়ে গিয়েছিলাম।

FB_IMG_1501361716900.jpg

শুরু করা যাক মূল আলোচনা। বিভ্রান্তিটির সূত্রপাত হয় বার কাউন্সিলের ওয়েবসাইট এর একটি পেজ থেকে। পেজ টি তে আছে MCQ এবং লিখিত পরিক্ষার সিলেবাস। সিলেবাসের ছকের অনেকগুলা ঘরের একটি হচ্ছে ‘Format Of Questions’, যার বাংলা অনুবাদ ‘প্রশ্নের ধরন’। এটা নিয়েই যত বিভ্রান্তি। যারা এই পেজ টি দেখেছে, তাদের অনেকের মতেই এই পেজ টি তে গত তিন বছর ধরে কোনই পরিবর্তন আনা হয়নি। সুতরাং এটা নিশ্চিত যে গতবার যারা পরিক্ষা দিয়েছেন তারা এই সিলেবাস অনুযায়ীই পড়েছেন।

আসলে ব্যাপার টা হলো, কিছুই পরিবর্তন হয়নি, বরং প্রশ্ন কি ধরনের আসতে পারে তা নির্দিষ্ট করা হয়েছে। সিলেবাসে বর্ণনামূলক কে কম প্রাধান্য দেয়া হয়েছে, তবে তার অস্তিত্ব বিলীন হয়নি।

আমরা যারা বিভিন্ন গাইড বুক পড়ে প্রিলিতে উত্তীর্ণ হতে সক্ষম হয়েছি, তারাই বেশিরভাগ এই ব্যাপারটা নিয়ে উদ্বিগ্ন। কারন গাইডবই এর ঠিক প্রথমের দিকে একটি ছকে প্রতিটি বিষয়ের মান বন্টন দেওয়া আছে। তবে সেই ছকে স্পষ্ট করে না লেখে, শুধু লেখা আছে ২ টির মধ্যে ১টি উত্তর দিতে হবে।

এখন এই দুটির প্রশ্নে হতে পারে একটি বর্ণনামূলক ও অপরটি সমস্যাভিত্তিক প্রশ্ন। এখানে কিছুই বাধ্যতামূলক করা হয়নি। ১৫ নম্বরের প্রশ্নে একজন বর্ণনামূলক লেখেও ফুল মার্ক পেতে পারে, আবার ড্রাফটিং বা প্রবলেম বেইজড্ লেখেও একই নম্বর পেতে পারে। বরং গতবারের পরিক্ষায় পাশ করা আজকের আইনজীবীদের মতে, ড্রাফটিং বা প্রবলেম প্রশ্ন উত্তরে বেশি মার্ক পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বার কাউন্সিল এই পর্যায় তাদের ওয়েবসাইট এর পেজ টি পরিবর্তন করে ‘Format of Questions’ এর ছক টা বাদ দিয়ে দিয়েছে।FB_IMG_1501403324396

প্রবলেম বেইজড্ প্রশ্নতে একটা সুবিধা আছে। যারা লেখায় ভাল এবং আইন এর সংজ্ঞাগুলো ভাল মত বুঝাতে পারবেন, তাদের ভাল করার চান্স বেশি। বর্ণনামূলক এ ‘টু দ্য পয়েন্ট’ লেখার একটা ব্যাপার আছে। তবে প্রবলেম প্রশ্নতে আছে আপনার লেখার দ্বারা বুঝানোর সুযোগ।

বার কাউন্সিলের লিখিত পরিক্ষার একটা বিষয় প্রশংসনীয়। এই পরিক্ষায় টিকবে শুধু তারাই, যারা আইন কে শুধু পড়ে না, বাস্তবার্থে প্রয়োগ করতে পারবে। এই পরিক্ষা শুধু তাদের জন্যই যারা সত্যিকারার্থে আইন পেশায় নিজেকে নিয়োজিত করতে ইচ্ছুক। কারন সব কথার এক কথা, মুখস্থ করে কিছুদূর যাওয়া যায়, তবে বেশিদূর না।

Advertisements